তনুশ্রীর যৌন হয়রানির খবর

admin

তনুশ্রী দত্ত এর আগে বলিউডের শক্তিমান অভিনেতা নানা পাটেকারের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ করেছেন। তখন তিনি বলেছেন, ১০ বছর আগে ‘হর্ন ওকে প্লিজ’ ছবির শুটিংয়ের সময় এই অভিনেতা তাঁকে যৌন হয়রানি করেছেন। এবার জানালেন, ২০০৫ সালে ‘চকলেট’ ছবির শুটিংয়ের সময় পরিচালক বিবেক অগ্নিহোত্রী তাঁকে জামা খুলে অন্য দুই শিল্পী সুনীল শেঠি আর ইরফান খানের সামনে নাচার জন্য বলেন।
তবে ডিএনএকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তনুশ্রী দত্ত বলেছেন, তখন পরিচালকের ওই সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করেন ইরফান খান ও সুনীল শেঠি। ইরফান খান রেগে যান। চিৎকার করে বলেন, ‘কেন তনুশ্রী দত্তকে আমাদের সামনে এভাবে নাচতে হবে? আমরা সবাই জানি, শুটিংয়ে কাকে কী করতে হবে। তাই এ নিয়ে অতিরিক্ত কথা বলার প্রয়োজন নেই।’ ওই সময় পরিচালকের ওপর সুনীল শেঠিও খেপে যান।
ডিএনএকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তনুশ্রী দত্ত যৌন হেনস্তার আরেকটি অভিযোগ করেন পরিচালক প্রেমাংশু রায়ের বিরুদ্ধে। ২০১৩ সালে প্রেমাংশু রায়ের ছবি ‘গন্ধ’তে অভিনয়ের জন্য অডিশন দিতে যান। তখন তাঁর বয়স ছিল ২০। অডিশনের পর তাঁকে আরেকটি কর্মশালার জন্য ডাকা হয়। এই কর্মশালা হয় রফি আহমেদ কিদওয়াই রোডে। তনুশ্রী দত্ত বলেন, কর্মশালার মাঝেই তাঁকে যৌন হেনস্তা করা হয়। তাঁকে দিয়ে জোর করে একাধিক ঘনিষ্ঠ দৃশ্যে অভিনয় করানো হয়। তখন পরিচালক হুমকি দেন, ঘনিষ্ঠ দৃশ্যে অভিনয় না করলে তাঁকে ছবি থেকে বাদ দেওয়া হবে। ওই সময় তাঁকে নগ্নভাবে ক্যামেরার সামনে দাঁড়াতে বাধ্য করা হয়। তখন ক্যারিয়ারের কথা ভেবে তিনি এ ব্যাপারে কিছু বলেননি।
প্রেমাংশু রায় এরপরও তনুশ্রী দত্তের ওপর অত্যাচার অব্যাহত রাখেন। তাই পরে বাধ্য হয়ে ২০১৬ সালে পর্ণশ্রী থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। পরে মামলাটি পর্ণশ্রী থানা থেকে পার্ক স্ট্রিট থানায় হস্তান্তর করা হয়। সেই মামলায় প্রেমাংশু রায় এখন জামিনে আছেন।
এর আগে ভারতীয় টেলিভিশন ‘নিউজ ১৮’–কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তনুশ্রী দত্ত অভিযোগ করেন, ২০০৯ সালে মুক্তি পাওয়া ‘হর্ন ওকে প্লিজ’ ছবি করতে গিয়ে সহ-অভিনেতা নানা পাটেকার তাঁকে যৌন হেনস্তা করেছেন। ৩৪ বছর বয়সের তনুশ্রী দত্ত বলেন, ছবিতে একটি বিশেষ গানের দৃশ্যে শুটিংয়ের বাইরে এক অভিনেতা তাঁকে যৌন হয়রানি করেন।
এদিকে নানা পাটেকারকে এ বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, ‘আমি কী বলব বলুন? আমার কী করার আছে? যৌন হেনস্তা বলতে কী বোঝাতে চান তনুশ্রী? ওই দিন শুটিং সেটে ৫০-৬০ জন ছিলেন। শুধু তা-ই নয়, এই বিষয়ে আলোচনা করা মানে শুধু শুধু সময় নষ্ট করা।’
নানা পাটেকারের বিরুদ্ধে তনুশ্রী দত্তের যৌন হেনস্তার অভিযোগের ব্যাপারে কথা বলেছেন বলিউডের জনপ্রিয় কোরিওগ্রাফার গণেশ আচার্য। তিনি দাবি করেন, তনুশ্রী যে সময়ের উল্লেখ করেছেন, সেদিন শুটিংয়ের সেটে তিনি ছিলেন। তখন এমন কোনো ঘটনা ঘটেনি।
যৌন হয়রানির বিরুদ্ধে ‘#মিটু’ আন্দোলনে যুক্ত হয়েছেন বলিউডের নায়িকা তনুশ্রী দত্ত।
সূত্র : প্রথম আলো, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮

Share us
Next Post

যৌন হেনস্তা : মুখোমুখি তনুশ্রী আর রাখী

২০০৪ সালের ‘মিস ইন্ডিয়া’ ও বলিউড তারকা তনুশ্রী দত্ত শক্তিমান অভিনেতা নানা পাটেকারের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ করেছেন। এ ছাড়া তিনি একই ধরনের অভিযোগ করেছেন পরিচালক বিবেক অগ্নিহোত্রী আর প্রেমাংশু রায়ের বিরুদ্ধেও। ভারতের টিভি চ্যানেল নিউজ এইটিনকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তনুশ্রী দত্ত অভিযোগ করেন, ২০০৯ সালে মুক্তি পাওয়া ‘হর্ন ওকে প্লিজ’ […]
Tanushree Dutta & Rakhi Sawant