পরিচালনা থেকে সরে গেলেন সাজিদ, শুটিং বন্ধ করলেন অক্ষয়

admin

যৌন হেনস্তার অভিযোগ
পরিচালনা থেকে সরে গেলেন সাজিদ, শুটিং বন্ধ করলেন অক্ষয়

বলিউডে #মিটু-তে অভিযোগ উঠল আরও একজনের নামে। গত কয়েক দিনে বলিউডের অনেকের বিরুদ্ধেই উঠেছে এই অভিযোগ। অভিযুক্ত ব্যক্তিদের মধ্যে আছেন প্রযোজক, পরিচালক, অভিনেতা, গীতিকবি, গায়ক, মডেলসহ অনেকে। সেই তালিকায় এবারে যুক্ত হলো ‘হাউসফুল-৪’ ছবির পরিচালক সাজিদ খানের নাম। অভিযোগ ওঠার সঙ্গে সঙ্গে পরিচালকের পদ থেকে সাময়িকভাবে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে তাঁকে। অভিযোগ ওঠামাত্র ‘হাউসফুল-৪’ ছবির শুটিং বন্ধ করে দিয়েছেন ছবির নায়ক অক্ষয় কুমার।
অন্তত তিনজন নারী অভিযোগ তুলেছেন সাজিদ খানের বিরুদ্ধে। তাঁদের মধ্যে রয়েছেন অভিনেত্রী সালুনি চোপড়া, র‍্যাচেল হোয়াইট ও সাংবাদিক কারিশমা উপাধ্যায়। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তাঁরা জানিয়েছেন তাঁদের সঙ্গে সাজিদ খানের উৎপীড়নমূলক অন্যায় আচরণের ঘটনা। তাঁদের দাবি, প্রত্যেকের কাছেই নোংরা আবদার করেছেন সাজিদ খান, দিয়েছেন কুপ্রস্তাব। এদের মধ্যে সাংবাদিক কারিশমার করা অভিযোগটি ভয়াবহ। আর সালুনিকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছিল, যা বলবে তা না করলে ছবিতেই নেবেন না সাজিদ। এসব অভিযোগের কথা জানার পর ‘হাউসফুল-৪’-এর শুটিং বন্ধ করে দিয়েছেন ছবির নায়ক অক্ষয় কুমার। ওই ছবির প্রযোজককে বলেছেন, ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত না হওয়া পর্যন্ত ছবির শুটিং বন্ধ রাখতে হবে। ছবির পরিচালক সাজিদ খানের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগের তদন্ত করতে হবে আগে। ঘটনা সত্য হলে তাঁর সঙ্গে কাজ করবেন না অক্ষয়।
এদিকে অভিযুক্ত পরিচালক সাজিদ খান জানিয়েছেন, তাঁর বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়া পর্যন্ত ছবির কাজ করবেন না তিনি নিজেও। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তিনি লিখেছেন, ‘আমর বিরুদ্ধে যে অভিযোগ উঠেছে সেটা নিয়ে আমি, আমার পরিবার, আমার প্রযোজক ও আমার ছবি “হাউসফুল”-এর তারকারা সবাই চাপের মধ্যে আছি। ঘটনার নৈতিক দায় আমাকেই নিতে হবে। সে জন্য পরিচালকের পদ থেকে সরে দাঁড়াচ্ছি আমি। যতক্ষণ না আমি নিজেকে নির্দোষ প্রমাণ করতে পারি, ততক্ষণ ছবির কাজ করছি না। সাংবাদিক বন্ধুদের প্রতি অনুরোধ থাকবে, সত্য প্রকাশের আগে তাঁরা যেন কিছু না লেখেন।’ সাজিদ খান পরিচালনা করেছেন ‘হিম্মতওয়ালা’, ‘হে বেবি’, ‘হাউসফুল’, ‘হাউসফুল-২’ ছবিগুলো। ‘হাউসফুল-৪’ ছবিতে কাজ করার কথা ছিল অভিনেতা নানা পাটেকারের। তাঁর বিরুদ্ধে তনুশ্রী দত্ত যৌন হয়রানির অভিযোগে মামলা করেছেন।
তথ্যসূত্র : ইন্ডিয়া টুডে, প্রথম আলো : ১২ অক্টোবর ২০১৮

Share us
Next Post

যৌন হয়রানির অভিযোগের বিচার হবে : মানেকা গান্ধী

ভারতে #মিটু আন্দোলন যৌন হয়রানির অভিযোগের বিচার হবে : মানেকা গান্ধী পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী এম জে আকবরের রাজনৈতিক ভাগ্য এখনো অজানা হলেও ‘#মিটু’ আন্দোলনে যৌন হয়রানির যেসব অভিযোগ সামনে এনেছে, তার বিচার করা হবে। অবসরপ্রাপ্ত চারজন বিচারপতিকে দিয়ে কেন্দ্রীয় সরকার একটি কমিটি গঠন করবে। সেই কমিটি এসব অভিযোগের বিচার করবে। কর্মক্ষেত্রে […]
Maneka Gandhi