সালমানের সাবেক প্রেমিকা বললেন ‘মি টু’

admin

সালমানের সাবেক প্রেমিকা বললেন ‘মি টু’

বলিউডে খুব অল্প সময়ের জন্য আবির্ভাব হয়েছিল অভিনেত্রী ও মডেল সোমি আলীর। তবে এই অল্প সময়ের মধ্যেই তিনি বলিউড তারকা সালমান খানের সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়ে যান। এরপর থেকে অনেকেই সোমিকে জানত সালমানের প্রেমিকা হিসেবে। দীর্ঘ সময় পর সেই সোমিই নতুন করে আলোচনায় এলেন। টুইটারে তিনি সম্প্রতি লিখলেন তাঁর সঙ্গে ঘটে যাওয়া যৌন হয়রানির কথা। চলতি ধারার সঙ্গে তাল মিলিয়ে তিনিও বললেন ‘মি টু’।
সোমি আলী গতকাল ‘হ্যাশট্যাগ মি টু’ আন্দোলনের অংশ হিসেবে একটি টুইট করেন। তাতে সাবেক প্রেমিক সালমান খানকে উল্লেখ করে অবশ্য কিছু লেখেননি তিনি। বরং তাঁর সঙ্গে ঘটে যাওয়া অন্যায়টা আরও অনেক বছর আগের। সোমি বলেন, মাত্র পাঁচ বছর বয়সে তিনি যৌন হয়রানির আর ১৪ বছর বয়সে ধর্ষণের শিকার হয়েছিলেন। কিন্তু কাছের মানুষদের নির্বিকার দেখে তিনি এ বিষয়ে মুখ খোলেননি কখনো। টুইটে সোমি লেখেন, ‘আমি জানি কতটা সাহস লাগে এ ধরনের হয়রানির কথা জনসমক্ষে বলতে। কারণ, আমি নিজেও এ ধরনের অভিজ্ঞতার মধ্য দিয়ে গেছি। কিন্তু সে সময় আমার পাশে যাঁদের থাকার কথা ছিল, তাঁদের কাউকে পাইনি। তাই কখনো এ বিষয় নিয়ে কথাও বলতে পারিনি।’
১৯৯১ থেকে ১৯৯৭ সাল পর্যন্ত পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত বলিউড অভিনেত্রী সোমি আলী ১০টি হিন্দি ছবিতে অভিনয় করেন। সে সময়ই তিনি সালমান খানের সঙ্গে প্রেমে জড়ান। ছয় বছর সেই প্রেম টিকেছিল। এরপর ১৯৯৯ সালে সোমি পড়াশোনার জন্য যুক্তরাষ্ট্রে চলে যান। এখনো সালমান ও সোমি ভালো বন্ধু হয়ে আছেন।
তথ্যসূত্র : হিন্দুস্তান টাইমস, প্রথম আলো : ১৭ অক্টোবর ২০১৮

Share us
Next Post

ভারতের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী এম জে আকবরের পদত্যাগ

‘#মি টু’ আন্দোলন ভারতের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী এম জে আকবরের পদত্যাগ ভারতের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী এম জে আকবর পদত্যাগ করেছেন। ‘#মি টু’ আন্দোলনে যৌন হয়রানির অভিযোগ ওঠায় পদত্যাগ করলেন তিনি। যদিও শুরু থেকেই তিনি এই অভিযোগ অস্বীকার করে আসছিলেন। অভিযোগ তোলায় একজনের বিরুদ্ধে মানহানির মামলাও করেছিলেন আকবর। এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়, ৬৭ […]
M J Akbar