বদিউল আলম খোকন

admin

বদিউল আলম খোকন
চলচ্চিত্র নির্মাতা, বাংলাদেশ

Badiul Alam Khokon
Film director, Bangladesh

বদিউল আলম খোকন, চলচ্চিত্র পরিচালক। বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির (২০১৭-১৮) নবনির্বাচিত মহাসচিব।
চলচ্চিত্রজগতে পরিচালক চাষী নজরুল ইসলামের সহকারী হিসেবে কর্মজীবন শুরু।
শিক্ষাগত যোগ্যতা : এমএ, হিসাববিজ্ঞান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়।
জন্ম : ১ মার্চ ১৯৬৩, বাঘের, মনোহরদী, নরসিংদী, বাংলাদেশ।
পরিচালক : পাগল মানুষ (২০১৮), রাজা বাবু (২০১৫), হিরো দ্য সুপারস্টার (২০১৪), ডেয়ারিং লাভার (২০১৪), মাই নেম ইজ খান (২০১৩), নিষ্পাপ মুন্না (২০১৩), ১০০% লাভ (বুক ফাটে তো মুখ ফোটে না) (২০১২), ডন নাম্বার ওয়ান (২০১২), অন্ধকার জগত্ (নির্মানাধীন), হারজিৎ (নির্মানাধীন)।
চিত্রনাট্য : হারজিৎ, ১০০% লাভ (বুক ফাটে তো মুখ ফোটে না), রাজা বাবু, ডন নাম্বার ওয়ান, মাই নেম ইজ খান।
প্রধান সহকারী পরিচালক : স্বপ্নের নায়ক (১৯৯৭)।

চলচ্চিত্রের সব সংগঠনকে সঙ্গে নিয়ে এগিয়ে যাওয়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির (২০১৭-১৮) নতুন মহাসচিব বদিউল আলম খোকন।
তিনি বলেন, সদস্যরা আবারও আমাদের উপর আস্থা রেখেছেন তার জন্য কৃতজ্ঞতা জানাই। যারা কাজ করে তাদেরই জয় হয়। বিজয়ী সবাইকে অভিনন্দন। যারা নির্বাচিত হননি তাদের জন্যও ভালোবাসা। সবাইকে নিয়ে সিনেমার সুদিন ফিরিয়ে আনতে কাজ করতে চাই।

-রঙিনদুনিয়া ডেস্ক

 

বিশেষ সংযুক্তি

চলচ্চিত্র সংগঠন

চলচ্চিত্র প্রযোজক, পরিচালক, শিল্পি, কুশলী, পরিবেশক এবং প্রদর্শকদের পেশাগত স্বার্থ রক্ষার্থে গঠিত সমিতি বা সংগঠন। ভারত উপমহাদেশে ১৯৩২ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় ভারত চলচ্চিত্র সমিতি। ১৯৩৮ সালে কলকাতায় প্রতিষ্ঠিত হয় চিত্র ব্যবসায়ীদের সংগঠন বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সমিতি। ১৯৩৯ সালে কলকাতায় প্রতিষ্ঠিত হয় আরেকটি সংগঠন নিখিল বঙ্গ চলচ্চিত্র সংঘ। ১৯৪০ সালে কলকাতায় প্রতিষ্ঠিত হয় চলচ্চিত্র সাংবাদিকদের সংগঠন বাংলা চলচ্চিত্র সাংবাদিক সমিতি (বিএফজেএ)। এ সমিতির মাধ্যমে ১৯৪১ সালে প্রথম চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রথা চালু হয়।

১৯৪৭ সালে দেশ বিভাগের পর পূর্ববঙ্গের রাজধানী ঢাকায় চিত্র পরিবেশক ও প্রদর্শকগণ গঠন করেন পূর্ব পাকিস্তান চলচ্চিত্র সমিতি। ১৯৫২ সালে পূর্ববঙ্গ চলচ্চিত্র সমিতি নামে আরেকটি সংগঠনের জন্ম হয়। এসব সমিতি গঠনের নেতৃত্ব দেন মির্জা আবদুল কাদের সর্দার, ইফতেখারুল আলম, ক্যাপ্টেন জায়েদী, আবু নাসের আহমেদ, লবিউদ্দীন সিদ্দিকী, আবরার সিদ্দিকী, এহতেশাম, ফজলে লোহানী প্রমুখ। ১৯৫৭ সালে ঢাকায় চলচ্চিত্র উন্নয়ন সংস্থা (এফডিসি) প্রতিষ্ঠিত হলে ছবি তৈরির জন্য বিভিন্ন প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান গড়ে ওঠে। এসব প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান ও পশ্চিম পাকিস্তানি প্রতিষ্ঠান মিলে পাকিস্তান চলচ্চিত্র প্রযোজক সমিতি গঠিত হয়। ১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ খান আতাউর রহমানের নেতৃত্বে গঠিত হয় বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রযোজক সমিতি। ১৯৭৫-৭৬ সালে গঠিত হয় পরিবেশকদের সংগঠন বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিবেশক সমিতি। ১৯৯৭ সালে প্রযোজক ও পরিবেশক সমিতি একত্রিত হয়ে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রযোজক-পরিবেশক সমিতি গঠিত হয়। সদস্যদের স্বার্থ রক্ষা ছাড়াও সমিতির আরেকটি উল্লেখযোগ্য অবদান হচ্ছে ১৯৯১ থেকে চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রবর্তন।

চিত্র পরিচালক পরিষদ

চিত্র পরিচালকদের প্রথম সংগঠন চিত্র পরিচালক পরিষদ বিশ শতকের ষাটের দশকের মাঝামাঝি সময়ে জহির রায়হানের নেতৃত্বে গঠিত হয়। ১৯৮১ সালে গঠিত হয় বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতি। চলচ্চিত্র সাংবাদিকদের সংগঠন পাকিস্তান চলচ্চিত্র সাংবাদিক সমিতি ১৯৬৮ সালে ঢাকায় প্রতিষ্ঠিত হয়। ১৯৭৩-৭৪ সালে সমিতি পুনরুজ্জীবিত হয় বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সাংবাদিক সমিতি নামে। সমিতির উল্লেখযোগ্য কার্যক্রমের মধ্যে রয়েছে চলচ্চিত্রের বিভিন্ন শাখায় পুরস্কার প্রদান। এ ছাড়া অন্যান্য চলচ্চিত্র সমিতির মধ্যে রয়েছে ঢাকা মহানগর চলচ্চিত্র প্রদর্শক সমিতি, বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রদর্শক সমিতি, বাংলাদেশ চলচ্চিত্র গ্রাহক সমিতি, বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সম্পাদক সংঘ, বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতি, বাংলাদেশ সহকারী চিত্র পরিচালক সমিতি (সিডাব), বাংলাদেশ চলচ্চিত্র ব্যবস্থাপক সমিতি, চলচ্চিত্র লেখক সমিতি, সিনেমা হল কর্মচারী শ্রমিক ইউনিয়ন প্রভৃতি।
-অনুপম হায়াৎ

তথ্যসূত্র : বাংলাপিডিয়া

Share us
Next Post

সভাপতি গুলজার, মহাসচিব খোকন

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির নির্বাচন সভাপতি গুলজার, মহাসচিব খোকন সভাপতি গুলজার, মহাসচিব খোকন। আবারও বাজিমাত করল মুশফিকুর রহমান গুলজার–বদিউল আলম খোকন প্যানেল। বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির (২০১৭-১৮) নির্বাচনে পুনর্নির্বাচিত হয়েছেন তাঁরা। স্বতন্ত্র প্রার্থীসহ তিন প্যানেলের মধ্যে সভাপতি, মহাসচিবসহ ১৪টি পদে (১৯টি পদের মধ্যে) বিজয়ী হয়েছে গুলজার–খোকন প্যানেল। বাকি ৫ পদে […]
Gulzar Khokon